ব্লগ লিখে আয় করার উপায় 2022

ব্লগ লিখে টাকা আয় করার উপায়
ব্লগ লিখে টাকা আয় করার উপায়

বাংলা ব্লগ লিখে টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে আপনাদের জানাতে আজকের এই পোস্ট।  বন্ধুরা ব্লগিং একটি মুক্ত পেশা। ব্লগ লিখে আয় করার উপায় সম্পর্কে আপনি জানেন কি? যদি জেনে থাকেন তবে আপনাকে এই পোস্টে আরো একবার স্বাগতম, এই পোস্টে আপনাদেরকে ব্লগ থেকে টাকা আয়ের কিছু সহজ মাধ্যম সম্পর্কে জানাবো।

একসময় লোকেরা নিজের শখের বশে ব্লগ লিখতেন। তবে বর্তমান প্রেক্ষাপট সম্পূর্ণ ভিন্ন, বর্তমানে এমন অনেক লোক রয়েছেন যারা ব্লগ লিখা বা  ব্লগিং কি পেশা হিসেবে নিয়েছেন।

ব্লগিং করলে নিজেই নিজের বস হতে পারবেন আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করবেন। আপনার ব্লগের যত বেশী পরিমান ভিজিটর আসবে আপনি তত বেশি টাকা আয়ের সুযোগ পাবেন।

এটা একান্তই নির্ভর করছে আপনার লেখা পোস্টগুলো গুগলে কিরকম পারফরম্যান্স করছে।

আপনার লেখা কনটেন্টগুলো যত বেশি গুগলের প্রথমপেজে রাংকিং পাবে আপনার আয় করার সম্ভাবনা তত বেশি থাকবে। 

ব্লগ কি?

ব্লগিং মানে আপনার ব্লগে নতুন পোস্ট যোগ করা। আমি বলতে চাচ্ছি যে আপনি যদি কোন বিষয় সম্পর্কে জেনে থাকেন, অথবা আপনি অন্যদের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চান, তাহলে আপনি সেগুলি আপনার ডায়েরিতে বা যেকোন ব্লগ বা ওয়েবসাইটে লিখতে পারেন। শুধু এই লেখার প্রক্রিয়াকে ব্লগিং বলা হয় ।

সেই সাথে বলা চলে অনেক ধরনের ব্লগ আছে যেমন পার্সোনাল ব্লগ, ফুড ব্লগ, টেক ব্লগ, ফিন্যান্স ব্লগ, ট্রাভেল ব্লগ, মোটিভেশন ব্লগ ইত্যাদি।

Content Writer Jobs in Bangladesh | বাংলা ব্লগ লিখে আয় করার উপায়

আপনি যে বিষয়ে আগ্রহী সেই বিষয়ে আপনার নিজস্ব ব্লগ তৈরি করতে পারেন।

ব্লগ লিখে আয় করার উপায় ২০২২

ব্লগ লিখে আয় করার উপায়
ব্লগ লিখে আয় করার উপায়

আপনার ব্লগ থেকে অর্থ উপার্জন করার অনেক উপায় আছে, যেগুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার ব্লগকে মনিটাইজ করতে পারেন।

শুধুমাত্র লক্ষ্য করার বিষয় হল আপনার ব্লগিং এর স্তর এবং আপনার ব্লগের ধরন বোঝার পরেই আপনাকে এই পদ্ধতিগুলি ব্যবহার করতে হবে।

আপনার অভিজ্ঞতা এবং আপনার ব্লগিং পদ্দতি থেকে আপনার ব্লগিং লেভেল নির্বাচন হবে এবং আপনি ব্লগ থেকে টাকা আয় করার উপায় খুঁজে পাবেন। 

এই ছিল ব্লগিং সম্পর্কে সামান্য তথ্য, এবার আসুন জেনে নিই কিভাবে আপনার ব্লগ থেকে টাকা আয় করবেন।

ব্লগ লিখে আয় করার উপায় গুলি কি কি?

ব্লগ থেকে টাকা আয় করার জন্য বর্তমানে অনেকেই অনেক ধরনের পদ্ধতি অবলম্বন করছেন ব্লগাররা। 

সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু পদ্ধতি সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হবে।

1. Google AdSense ( গুগল অ্যাডসেন্স ) এবং অন্যান্য বিজ্ঞাপন মনিটাইজেশন থেকে আয় 

যাইহোক, ইন্টারনেটে আপনি ব্যবহার করার জন্য অনেক বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক পাবেন।

কিন্তু এর মধ্যে থেকে, আপনাকে আপনার ব্লগের জন্য সেরা বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক বেছে নিতে হবে, যা আপনাকে সহজে এবং সময়ে সময়ে অর্থ প্রদান করবে।

ইউটিউব থেকে আয় করবেন যেভাবে 2022

আমার মতে, ব্লগ মনিটাইজেশন করার জন্য এই দুটি বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক খুবই জনপ্রিয়:

  • Google AdSense (Google থেকে প্রদান করা)
  • media.net

এই নেটওয়ার্ক গুলি থেকে মনিটাইজেশন বা অনুমোদন পেতে আপনার অবশ্যই একটি ব্লগ থাকতে হবে৷

তারা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার নিবন্ধের প্রসঙ্গে এবং ব্যবহারকারীর আগ্রহের ভিত্তিতে বিজ্ঞাপনগুলি দেখায়।

বেশিরভাগ নতুন ব্লগাররা তাদের ব্লগকে মনিটাইজেশন করতে এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করেন, কারণ এই মনিটাইজেশন কোম্পানি গুলি ব্লগারদের নিয়মিত আয় প্রদান করে।

সুতরাং আপনি যদি এই নেটওয়ার্কগুলি ব্যবহার করতে চান তবে আপনাকে তাদের অনুমোদনের জন্য আবেদন করতে হবে, যেখানে আপনি একবার এই মনিটাইজেশন কোম্পানি গুলি থেকে অনুমোদন পেলে আপনি সহজেই আপনার ট্র্যাফিক অনুসারে ভাল পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন।

2. Affiliate marketing ( অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে আয় ) 

বর্তমান সময়ে ব্লগারদের মধ্যে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং খুবই বিখ্যাত একটি মনিটাইজেশন পদ্দতি।

কারণ এতে আপনাকে বেশি কিছু করতে হবে না, শুধু আপনার ব্লগে কিছু লিঙ্ক যোগ করতে হবে।

অন্যদিকে, কেউ যদি সেই লিঙ্কগুলিতে ক্লিক করে কিছু জিনিস বা পরিষেবা কিনে থাকেন তবে আপনি এর জন্য অর্থ পাবেন।  

এখানে আমি আপনাকে কিছু জনপ্রিয় অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে বলেছি যে আপনি চাইলে যোগ দিতে পারেন:

  • Amazon Affiliate program
  • Hosting Affiliates
  • Blogging Tools Affiliates

এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য বাংলা ব্লগ সাইট গুলো খুব বেশি উপযুক্ত নয়।

কেননা বাংলাদেশ এফিলিয়েট প্রোগ্রাম অনেক কম তাই আপনাকে এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে হলে ইংরেজি কন্টাক্ট লিখতে হবে।  

3. Sponsored Post থেকে আয়

এছাড়াও আপনি পেইড রিভিউ বা স্পনসর করা পোস্টের মাধ্যমে নিজের জন্য অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

এটা নির্ভর করে আপনার ব্লগ কতটা বড়, এটি কতটা জনপ্রিয়, এর ট্রাফিক কেমন ইত্যাদি। 

আপনার কাছে এই সমস্ত পরিসংখ্যান যত ভালো থাকবে, প্রতিটি স্পনসর করা পোস্টের জন্য আপনি তত বেশি চার্জ করতে পারবেন।

আমি কিছু ব্লগ দেখেছি যে প্রতিটি পোস্টের জন্য 100 ডলার পর্যন্ত চার্জ করে।

তবে আপনাকে স্পন্সর পোস্ট দেয়ার জন্য 100 ডলার পেতে হলে ন্যূনতম পক্ষে 2 থেকে 3 বছর কাজ করে যেতে হবে নিয়মিত।

4. Direct Advertisement থেকে আয় 

এটা সত্য যে Google AdSense বর্তমানে ব্লগারদের জন্য সেরা বিজ্ঞাপনের প্রোগ্রাম, কিন্তু এর কিছু সীমাবদ্ধতাও রয়েছে।

এবং সবচেয়ে বড় সীমাবদ্ধতা হল আপনি প্রতি ক্লিকে যে মূল্য পাবেন তা খুবি কম।

এমন পরিস্থিতিতে, আপনি যদি কোন কোম্পানি থেকে সরাসরি বিজ্ঞাপন পান, তবে আপনি কিছু অ্যাডসেন্স ইউনিটের জায়গায় সরাসরি বিজ্ঞাপন স্থাপন করে ভাল অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

আপনার ব্লগ জনপ্রিয় হলে এবং ব্লগে ভালো পরিমাণ ভিজিটর থাকলে সরাসরি বিজ্ঞাপনের জন্য খুব ভালো কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করুন।

ব্লগ লিখে আয় করার উপায় নতুন একটি পদ্দতি এটি।

ব্লগ লিখে আয় করার উপায় সম্পর্কে কিছু কথা

 প্রিয় পাঠক বন্ধু আপনি যদি বাংলা ব্লগার হন তবে আপনার আয় করার সবচেয়ে ভাল মাধ্যম হবে গুগল এডসেন্স। 

এছাড়াও ধীরে ধীরে আপনার ব্লগ যতই পুরানো হবে এবং যখন জনপ্রিয় হবে তখন আপনি স্পন্সর পোস্ট এর মাধ্যমে আয় করতে পারবেন।

তবে বর্তমানে বেশিরভাগ বাংলা ব্লগার গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা আয় করে থাকে।

বাংলা গল্প লিখে টাকা আয় করা যায় কি?

হাঁ, বাংলা গল্প লিখে টাকা আয় করা যায়। বাংলা গল্প লিখে টাকা আয় করতে একটি ব্লগ তৈরি করুন এবং রেগুলার গল্প লিখুন।

ব্লগ কিভাবে তৈরি করে?

ব্লগ তৈরি করার জন্য গুগলের free blogspot সাইট ব্যাবহার করুন অথবা ডোমেন ও হোস্টিং ক্রয় করে ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে একটি ব্লগ তৈরি করতে পারেন অল্প কিছু সময়ের মধ্যে।

ব্লগের মাধ্যমে কত টাকা আয় করা যায়?

ব্লগের মাধ্যমে টাকা আয়ের কোন সিমা নেই। আপনার ব্লগে যত বেশি ভিজিটর আসবে আপনার টাকা আয়ের সম্ভাবনা তত বেশি।

উপসংহার,

আশা করি আপনি জানতে পেরেছেন ব্লগ থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়। ব্লগ লিখে আয় করার উপায় সম্পর্কে আপনার আরও জানার থাকলে আমাদের কমেন্ট করে জানান।

টেলিকম অফার মোবাইল ব্যাংকিং কবিতা এসএমএস গুলো নিয়মিত পড়তে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন.

সেই সাথে রেগুলার আপডেট পেতে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। 

1 COMMENT

Comments are closed.