এলসিডি ও এলইডি মনিটরের পার্থক্য কি? | Difference LED TV vs LCD TV

এলসিডি ও এলইডি মনিটরের পার্থক্য কি? এই সম্পর্কে এখন অনেকেই জানতে চান। টিভি কেনার আগে কোন টিভি কিনবেন তা নিয়ে সবসময় সন্দেহ থাকে, মাঝে মাঝে মনে হয় বড় স্ক্রীনের সাইজ ভালো, তারপর অনেক সময় আমরা এলইডি টিভি আর এলসিডি টিভির মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারি না। প্রায়ই আমাদের প্রতিবেশী বা দোকানদার থেকে আমরা টেলিভিশন কিনি, কিন্তু আজ আমরা আপনাদের তথ্য দিব, এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভির মধ্যে পার্থক্য কী যাতে পরের বার আপনি যখন টিভি কিনতে যাবেন, তখন আপনি আপনার বাজেট অনুযায়ী সঠিক টিভি বেছে নিতে পারেন।

আমি এই নিবন্ধে আপনাকে বলছি এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভি কি একই এবং দুটির মধ্যে পার্থক্য কী।

এলইডি এবং এলসিডির মধ্যে পার্থক্য কী: আপনি অবশ্যই বহুবার এলইডি বা এলসিডি সম্পর্কে শুনেছেন। কখনও ভেবেছেন এলসিডি টিভি এবং এলইডি টিভি বা স্ক্রিন কী এবং দুটির মধ্যে পার্থক্য কী।

LED এবং LCD উভয়ের স্ক্রিনই একটি লিকুইড ক্রিস্টাল ডিসপ্লে। যেকোনো এলসিডি ডিসপ্লেতে কাচের দুটি স্তর থাকে যা পোলারাইজিং দ্বারা সংযুক্ত থাকে, যেখানে তরল স্ফটিকগুলি টেলিভিশনের ছবিতে প্রদর্শনের জন্য আলোকে পাস বা ব্লক করে।

এর মধ্যে লক্ষণীয় বিষয় হল স্ফটিকগুলি কোনও আলো তৈরি করে না কারণ স্ক্রিনের পিছনের অনেকগুলি বাতি থেকে আলো আসে। এলসিডি স্ক্রীনে স্ক্রিনের পিছনে ফ্লুরোসেন্ট ল্যাম্প (আলোর উৎস) থাকে, আর এলইডি স্ক্রীনে স্ক্রিনের পিছনে লাইট এমিটিং ডায়োড (এলইডি) থাকে।

এলসিডি ও এলইডি মনিটরের পার্থক্য কি? | Difference Between LED TV And LCD TV

এলসিডি ও এলইডি মনিটরের পার্থক্য
এলসিডি ও এলইডি মনিটরের পার্থক্য

(লিকুইড ক্রিস্টাল ডিসপ্লে) এলইডিগুলিও এক ধরণের মনিটর – টিভি, তবে এগুলি সাধারণ মনিটরের তুলনায় অনেক পাতলা, পাশাপাশি তারা তাদের থেকে কম শক্তিতে কাজ করে এবং মনিটরের চেয়ে ভাল স্ক্রিন দেখানোর ক্ষমতা রাখে। পাতলা এবং হালকা হওয়ার কারণে, তারা কম জায়গা দখল করে এবং আপনি সহজেই আপনার বাড়ির বা অফিসের দেয়ালে ইনস্টল করতে পারেন।

এলসিডি টিভিতে দুটি কাচের স্তর থাকে যা একে অপরের থেকে আলাদা কিন্তু একে অপরের সাথে আঠালো থাকে। এগুলোর একটিতে লিকুইড ক্রিস্টালের একটি স্তর থাকে এবং যখন ইলেকট্রিক লাইট আসে তখন এই লিকুইড ক্রিস্টাল থেমে যায় এবং আলো ছেড়ে দেয় যাতে ছবি/স্ক্রিন দেখা যায়। এই স্ফটিকগুলির নিজস্ব কোন আলো নেই। LCD তার ব্যাকলাইট আলোকসজ্জার জন্য একটি ফ্লুরোসেন্ট বাতি ব্যবহার করে। এটি LED এবং LCD এর মধ্যে পার্থক্য।

LED কি? কিভাবে LED কাজ করে?

এলইডি টেলিভিশন (লাইট এমিটিং ডায়োড) হল একটি সেমিকন্ডাক্টর ডিভাইস যা বৈদ্যুতিক প্রবাহ পাওয়া গেলে এবং ডিসপ্লেটি দৃশ্যমান হলে আলো পাস করে। এর আলো খুব বেশি উজ্জ্বল নয় এবং এর তরঙ্গরূপের দূরত্বও একই। এটি তার বেকেলাইট আলোর জন্য ডায়োড ব্যবহার করে। এর রঙের ধরনও অন্যান্য ডিসপ্লে ডিভাইসের তুলনায় আরও স্পষ্ট।

এগুলোর দাম যেমন এলসিডির চেয়ে বেশি, তেমনি এগুলোকে এলসিডির নতুন সংস্করণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। L-E-D কে IRED (ইনফ্রারেড – ইমিটিং ডায়োড)ও বলা হয় কারণ LED থেকে যে আউটপুট বের হয় তা হল লাল, সবুজ বা নীল।

LED সেমিকন্ডাক্টর আছে – প্রথম P-টাইপ সেমিকন্ডাক্টর এবং দ্বিতীয় N-টাইপ সেমিকন্ডাক্টর। এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভিতে তাদের ওজন যেমন এলসিডি থেকে হালকা, তেমনি এটি তাদের থেকে পাতলা।

আড়ও পড়ুনঃ নতুন জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার নিয়ম ও ডাউনলোড ২০২২

এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভির মধ্যে পার্থক্য কি?

LCD এর পূর্ণরূপ হল Liquid Crystal Display এবং LED এর পূর্ণরূপ হল Light Emitting Diode। এই দুটি প্রযুক্তিই ডিসপ্লের প্রধান প্রযুক্তি, যা আজকের তারিখে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সবচেয়ে উপযোগী। এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভির অগ্রগতি বলা হয়।

ব্যাকলাইট:

এলইডি ডিসপ্লে হল এক ধরনের “এলইডি ব্যাকলাইট সহ এলসিডি ডিসপ্লে” যা এলসিডি প্যানেলকে শক্তি দিতে ব্যবহৃত হয়। এর মানে হল যে এলইডিগুলি এলসিডি প্যানেলের পিছনে এবং চারপাশে মনিটরের স্ক্রিনের ভিডিও সংজ্ঞা উন্নত করতে স্থাপন করা হয়েছে। এলসিডি ডিসপ্লের ব্যাকলাইটের জন্য কোল্ড ক্যাথোড লাইট ব্যবহার করা হয়। এলইডি ডিসপ্লেতে পুরো ধারণাটি একই, শুধুমাত্র এই ব্যাকলাইট বৈশিষ্ট্যটি এলইডি দিয়ে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।

LED-তে স্ক্রিনে আলো ফেরানোর জন্য দুই ধরনের পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়: প্রান্ত আলো এবং সম্পূর্ণ অ্যারে আলো (স্থানীয় ডিমিং সহ বা ছাড়া)।

কন্ট্রাস্ট:

এলইডি স্ক্রিনে কনট্রাস্ট এবং ব্ল্যাক লেভেল এলসিডি স্ক্রিনের চেয়ে ভালো। কারণ লিকুইড ক্রিস্টাল ঠাণ্ডা ক্যাথোডের ব্যাক-লাইট 100% বন্ধ করতে পারে না, এবং যখন কালো পর্দা মনিটরে দেখাতে হয়।

এটি সম্পূর্ণ কালো হয়ে যায় না, তবে LED স্ক্রিনগুলি কোনও সমস্যা ছাড়াই কালো পর্দা দেখায় কারণ কোনও ব্যাক-লাইট নেই। এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভি বিপরীতে এলইডি টিভি এগিয়ে রয়েছে।

তাই বলা যায় এলসিডি ও এলইডি মনিটরের মূল পার্থক্য বিবেচনায় কনট্রাস্ট খুবি গুরুত্বপূর্ণ।

পর্দা:

LCD এর চেয়ে কম শক্তি ব্যবহার করে, উজ্জ্বল ডিসপ্লে দেয়, পাতলা পর্দা বা প্যানেল পাতলা এবং কম তাপ উৎপন্ন করে।

LED স্ক্রীন LCD-এর তুলনায় ব্যাক-লাইটিং-এর জন্য আলো-নির্গত ডায়োড ব্যবহার করে।

আপনি যদি LED ডিসপ্লের জন্য প্রযুক্তিগতভাবে সঠিক নাম বলতে চান LED ডিসপ্লে নয়, তাহলে আপনি এটিকে “এলইডি-ব্যাক-লাইট এলসিডি স্ক্রিন” বলতে পারেন।

আড়ও পড়ুনঃ

পসংহার

এখানে আপনার প্রশ্ন এলসিডি ও এলইডি মনিটরের পার্থক্য কি পরিষ্কার হয়ে গেছে। আপনি যদি একটি নতুন টিভি কিনতে চান, তাহলে আপনাকে এলইডি টিভি এবং এলসিডি টিভি স্ক্রিন বা টিভির মধ্যে একটি বেছে নিতে হবে, তাহলে আপনাকে কেবল এলইডি বেছে নেওয়া উচিত কারণ এলইডি টিভিগুলি উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভাল ছবির গুণমান দেয় তবে এলসিডির তুলনায় কিছুটা ব্যয়বহুল।

 সিমের অফার ও অজানা তথ্য সম্পর্কে জানতে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।