Easy way to earn money online 2020-অনলাইনে আয়ের সহজ পদ্দতি

Easy way to earn money online 2020

Easy way to earn money online 2020 কথাটি শুনতে ভাল লাগে । অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি সমূহ সম্পর্কে আজকে আলোচনা করব। বন্দুরা আপনারা সবাই হয়ত জানেন অনলাইনে ইনকাম  করা যায় । তবে অনেকে হয়ত জানেন না যে কিভাবে ইনকাম করা যায় । একুশ শতাব্দীতে সকল কিছুই পরিবর্তন হচ্ছে ।পরিবর্তন হচ্ছে টাকা আয় করার পদ্দতি ।এই পরিবর্তন শীল বিশ্বে ঘরে বসে কিভাবে টাকা আয় করবেন। অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় জানাতে চলে এলাম আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে। 

Quick Navigation show

Easy way to earn money online 2020

অনেকে জানতে চান কী কী কাজ করে অনলাইনে আয় করা যায়অনলাইনে আয় করার পদ্ধতি সমূহ কি কি ।

আলোচনা করার পূর্বে কিছু কথা বলব

যে কোন আয় সেটা অনলাইন কিংবা অফলাইন ।আপনাকে রা্তরাত কোটিপতি বানাতে পারবে না।

রাতরাত কোটিপতি বানাতে পারে শুধু লটারি । অন্য যে আয় করার জন্য আপনাকে কষ্ট করতে হবে ।

সেটা অনলাইন কিংবা অফলাইন যাই হোক না কেন ।

অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি সমূ্হ ২০২০ এ আপনাকে স্বাগতম ।

আপনি যত বেশি কষ্ট করবেন, তত বেশি আয় করতে পাবেন।Earn money online-অনলাইন ইনকামের কথা চিন্তা করে থাকলে । ব্রেন থেকে এই চিন্তাটি কে মুছে ফেলুন । যে কাজ শুরু করার ১০-১৫ দিনের মধ্যে হাজার বা লক্ষ টাকা আয় করা শুর করবেন । সময় লাগবে , একদিন এমন হবে । আপনি হাজার বা লক্ষ টাকা ইনকাম করবেন অনলাইন থাকে । সে-জন্য আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে। কষ্ট করতে হবে। যদি ধৈর্য ধরতে পারেন তবেই এই ফিল্ড এ আসবেন।যদি আপনি সময় ব্যয় করতে পারেন তবেই এই ফিল্ডে আসবেন ।

পাট টাইম কাজ করবেন নাকি ফুল টাইম ?

আপনাকে লক্ষ্য ঠিক করতে হবে আপনি ফুল-টাইম করবেন নাকি  পার্ট-টাইম  কাজ করবেন । আপনি অনলাইনে পার্ট টাইম কাজ শুরু করতে পারেন ।যখন আপনি ইনকাম করা শুরু করবেন । তখন নিচয়ই বুজে যাবেন ডে-ওয়ান থেকে কিভাবে ফুল টাইম উপার্জন করা যায় । তখন থেকে ফুল-টাইম ক্যারিয়ার হিসাবে নিতে পারেন অন-লাইন ক্যারিয়ার।আমার কথাগুলি ভালভাবে বুজার চেষ্টা করবেন আশা করি ।তারপর আপনি আপনার সিদান্ত নিবেন কিভাবে শুরু করতে চান । প্লিজ আগে ভালকরে জেনে-বুজে তারপর শুরু করুন ।

অনলাইনে আয় করার সেরা ৫ টি পদ্ধতি 2020 নিছে আলোচনা করা হল

1. YouTube-ইউটিউব থেকে ইনকাম

youtube income 2020,make money online how, how to make money online, earn money online 2020, how to earn money online, earn money online how, ways to make money online, online earn money, fast make money online, make money online faster, earn online money, online income, internet income, online money income, online money income site
youtube income 2020

অনলাইন দুনিয়ায় গুগলের পরেই রয়েছে ইউটিউব ।পৃথিবীর মধ্যে সেরা ও প্রথম ভিডিও সার্চ ইঞ্জিন ইউটিউব

যা দারা আমরা বিভিন্ন ভিডিও দেখে থাকি । ভিডিও দেখার পাশাপাশি ইউটিউব আপনাকে আয় করার সুযোগ দিচ্ছে।

শিক্ষা বিনোদন তথ্য সব কিছুরই রসদ দিচ্ছে ইউটিউব । ইউটিউব থেকে অনেকে অনেক ভালো পরিমান টাকা ইনকাম করে ।

ক্রমেই অংশ গ্রহণ বাড়ছে বাংলাদেশী ইউটিউবার দের ।অ্যাকাউন্ট তৈরির তথ্য অনুযায়ী ,বাংলাদেশের প্রথম ইউটিউবার সালমান মুক্তাদির ।

সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকজন তরুণ দারুণ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন ইউটিউবে । ইউটিউব থেকে আপনিও টাকা আয় করতে পারবেন ।

একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে ভিডিও আপলোড করতে পারেন । ভিডিও আপলোড করে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

পছন্দ মত ক্যাটাগরিতে আপনি যে বিষয়ে ভাল জানেন । যে বিষয়ে লোকজনকে জানাতে আপনার ভাল লাগে ।

সে বিষয়ে ভিডিও আপলোড করতে পারেন । যদি ভিডিও গুলিতে ভাল ভিউ , লাইক , শেয়ার আসে ।

লোকজন যদি আপনার চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে ।তবে আপনি ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন ।

ইউটিউব আপনার ভিডিও গুলির উপর অ্যাড দিবে । অ্যাড থেকে আপনিও আয়ের একটি অংশ পাবেন ।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে টাকা আয় কি সম্বভ ?

হা ইউটিউব থেকে আয় করা সম্ভভ ।টাকা মূলত গুগল অ্যাডসেন্স দিয়ে থাকে । অ্যাডসেন্স হচ্ছে গুগলের বিজ্ঞাপন পরিবেশক কম্পানি ।ভিডিও গুলির উপর যে অ্যাড  দেখানো হয় ।বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাডসেন্স কে অ্যাডর জন্য টাকা দেয় ।অ্যাডসেন্স টাকার  কিছু  নিজে রাখে এবং কিছু অংশ আপনাকে দিয়ে থাকে ।

2. Affiliate Marketing-এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করাটা বর্তমান সময়ে সব থেকে বেশি লাভ জনক । ব্লগার দেড় মধ্যে সবচেয়ে প্রচলিত উপায় হিসেবে প্রচলিত ।

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি ?

Affiliate Marketing income 2020
Affiliate Marketing income

অ্যামাজন , ফ্লিফকার্ড , স্নাপডিল এই গুলি অনলাইন শপিং মার্কেট প্লেস ।এদের সবার একটা Affiliate Marketing -এফিলিয়েট মার্কেটিং কার্যক্রম বা প্রোগ্রাম আছে।অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি এফিলিয়েট মার্কেটিং অনেকটা কমিশন ব্যবসা মতই।

এফিলিয়েট প্রোগ্রাম এর মাধ্যমে আপনি তাদের যে কোন পণ্য বিক্রি করার জন্য লিংক নিতে পারেন ।

আপনি লিংকটাকে যেকোনো যায়গায় প্রমোট করতে পারেন ।

আপনার ফেসবুক গ্রুপে লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন । হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন । টুইটারে লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন ।

এফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে কিভাবে আয় করা যায় !

ইউটিউব চ্যানেল অথবা আপনার ব্লগে লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন। আপনার লিংক থেকে যদি পণ্যটি কেউ ক্রয় করে । তবে আপনি একটা নির্দিষ্ট কমিশন পাবেন ।পণ্যের ধরন অনুসারে কমিশন ২ থেকে ১৫% পর্যন্ত । কিছু ক্ষেত্রে আরও বেশি।

অনলাইন শপিং মার্কেট প্লেস গুলির কমিশন রেট অলাদা আলাদা ।ধরুন কেউ মোবাইল 2% দিচ্ছে আবার কেউ 5% দিয়ে থাবে ।বই বিক্রির ক্ষেত্রে কমিশন একটু বেশি পাওয়া যায় ।এটাও অনলাইন আয় করার একটি ভাল উপায় ।আপনি অ্যামাজন , ফ্লিফকার্ড , স্নাপডিল ছাড়াও আরও অনেক অনলাইন শপিং কম্পানি আছে । আপনি যে কারো Affiliate Marketing -এফিলিয়েট মার্কেটিং প্রোগ্রাম  এ অ্যাকাউন্ট তৈরি করে শুরু করতে পারেন আপনার এফিলিয়েট মার্কেটিং ।

3. Bloging – ব্লগিং

অনেকের প্রশ্ন থাকতে পারে ব্লগিং কি। বন্দুরা আজাকাল ব্লগিং নয় এখন চলিতেছে ইভেন্ট ব্লগিং ।

ইভেন্ট ব্লগিং কি ?

ইভেন্ট ব্লগিং হচ্ছে বর্তমানে অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি গুলির মধ্যে অন্যতম ।

যেমন BPL-2020 , IPL-2020 , দিওয়ালী , t20 worldcup আসিতেছে ।একটি ওয়েবসাইট তৈরি করছে শুধু একটি বিষয়ের উপর।

এ সকল ওয়েবসাইট কে niche website বলা হয়ে থাকে ।

যে কোন একটি আপকামিং বিষয়ের উপর ব্লগিংকে ইভেন্ট ব্লগিং বলা হয় ।

লোকজন গুগলে এগুলি লিখে চার্চ করে ।ধরুন IPL 2020 এর সময়  ipl 2020 schedule, দিওয়ালীর সময় দিওয়ালী নিউ এসএমএস ইত্যাদি ইত্যাদি ।

ইভেন্ট ব্লগ সাইট গুলিতে টপিক বা বিষয় সম্পর্কিত বিষয়ে ।ইভেন্ট বা প্রোগ্রাম আসার আগেই সে সম্পর্কিত পোস্ট লেখার মাধ্যমে প্রস্তুতি থাকে।ইভেন্ট ব্লগিং থেকেও টাকা আয় করা যায় ।

ইভেন্ট ব্লগিং ছারাও শুদু ব্লগিং করেও টাকা কামানো যায় ।যেমন মুভি রিভিও ওয়েবসাই । মোবাইল ফোনে রিভিও । অনলাইন আরনিং, ব্লগিং টিপস সম্পর্কিত ওয়েবসাই ইত্যাদি ।

সারা বছর লোকজন বিষয় গুলিকে গুগলে সার্চ করে জানতে চায় । আপনার যদি লেখা-লেখি করতে ভালো লাগে তবে আপনি ব্লগিং শুরু করতে পারেন।

4. Freelancing -ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম

আমরা সবাই এই ফ্রিল্যান্সিং শব্দটির সাথে পরিচিত । বাংলাদেশের হাজার হাজার যুবক ফ্রিল্যান্সিং কে নিজের পেশা হীশাবে বেছে নিয়েছে ।ফ্রিল্যান্সিং মাসিক ভালো পরিমান টাকা আয় করা যায় এটা এখন প্রমাণিত । ফ্রিল্যান্সিং অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি হিসাবে নিতে চাচ্ছেন।

ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম করতে হোলে কী করতে হবে ?

আপনাকে অনলাইন করাযায় এমন কাজ জানতে হবে বা শিখতে হবে।অনলাইন মার্কেট প্লেছ গুলিতে হাজারো কাজ রয়েছে আপনার জন্য । জনপ্রিয় মার্কেট প্লেস গুলি হল  Upwork.com , Fiverr.com , Freelancer.comএছাড়াও আরও অনেক মার্কেট প্লেছ আছে আপনি অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতিটি খুজে নিতে পারেন।আপনি ফটোশপ , ফটো এডিটিং ,ওয়েব ডিজাইন ,ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ইউটিউব ভিডিও দেখে অথবা বিভিন্ন ব্লগ পড়ে শিখতে পারেন ।

5. Article Writing – ডাটা এন্ট্রি থেকে ইনকাম

আপনি কি একজন  শিক্ষিত বেকার।

অনলাইনে করার মত কোন কাজ জানেন না।

তাহলেও ডাটা এন্ট্রি থেকে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন ।

আপনিও আয় করতে পারেন অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি Article Writing বা ডাটা এন্ট্রির মাধ্যমে ।আপনি দুই ভাবে কাজ করতে পারেন ।

চাকরি হিসাবে অথবা একজন লেখক হিসাবে ।Article এর উপর ভিত্তি করে আপনাকে টাকা প্রদান করা হবে ।

লক্ষ্য করে থাকবেন প্রতিটি নিউজ চ্যানেলের একটি করে ওয়েবসাইট আছে । তাদের প্রতিদিন বিভিন্ন ধরণের আর্টিকেল পাবলিশ করতে হয় ।

বর্তমান সময়ে আপনি ইংলিশ অথবা বাংলায় লিখতে পারেন । অনলাইনে অনেক ওয়েবসাইট আছে যাদের অনেক Article Writing করতে হয় ।

অনলাইন মার্কেট প্লেছ গুলিতে Article Writing বিষয়ক বিভিন্ন ধরণের কাজ আছে । আপনি আপনার পছন্দ মত অপশনটি দেখে নিবেন ।

click here ? Garameenphone internet offer 

উপসংহার :

অনলাইন মার্কেট প্লেছ গুলিতে আরও অনেক কাজ আছে।অনলাইনে আয়ের সহগ পদ্দতি খোজতে গিয়ে কোন শর্টকাট ওয়ে খুজবেন না ।

আগে দেখবেন আপনি কি জানেন ।আপানার কোন বিষয়ে অভিজ্ঞতা আছে ।কোন বিষয়টা আপনার শিখতে ভালো লাগে ।

অনলাইনে কাজ শিখুন । তারপর কাজ শুরু করুন ।আপনি ১০০% নিশ্চিত অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় গুলি খুজে পাবেন ।