বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম | কিভাবে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করবেন

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম
বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম কি? কিভাবে আপনি নিজের পার্সোনাল মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করবেন। বন্ধুরা আমারা ইতি পূর্বে জেনেছি বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হলে করনীয় এবং নুতুন বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম টি সম্পর্কে।

কিন্তু অনেক বিকাশ গ্রাহক সমস্যাই পড়েন নিজের বিকাশ পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা নিয়ে।

এই পোস্টে আপনি জানতে পারবেন বিকাশ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম জানবো, সেই সাথে বিকাশ পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট ডিলিট, নাম বা মালিকনা পরিবর্তন করতে কি করণীয় তা জানতে পারবেন।

বন্ধুরা ২০১৮ পর্যন্ত বিকাশ গ্রাহক একটি nid কার্ড দিয়ে একাধিক বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারতেন। তবে বর্তমানে একজন গ্রাহক তার nid কার্ড দিয়ে সর্বচ্চো একটি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারেন।

তাই অনেকেরি এখন পূর্বের সকল বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করে নিজের একটি বিকাশ অ্যাকাউন্ট রাখতে চাচ্ছেন।

আবার অনেকে তাদের যে নম্বরে বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন তা বন্ধ করে নতুন একটি নম্বরে বিকাশ একাউন্ট চালু করতে চান।

প্রয়োজন যাই হোক না কেন আপনি আপনার বিকাশ একাউন্ট কিভাবে বন্ধ করবেন এটা হচ্ছে মুল কথা।

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম কি?

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম
বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

মনে রাখবেন আপনার বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম নিয়ম হচ্ছে আপনাকে প্রথমে ব্যালেন্স 0 করে নিতে হবে। তবে শুধু ব্যালেন্স ০ করলেই হবেনা আপনাকে অফিসে ভিজিট করতে হবে।

কেননা বিকাশ কাস্টমার কেয়ার এ কল করে বা মোবাইল অ্যাপস এর সাহায্যে বিকাশ একাউন্ট করা সম্ভব নয়।

তাই যে নামের বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করবেন উক্ত বেক্তিকে ফিজিক্যালি বিকাশ অফিসে ভিজিট করতে হবে। সেই সাথে আপনার কি কি করনীয় তা জাতে পারবেন এখানে।

পথমত আপনার নিকটবর্তী বিকাশ অফিস ভিসিট করুন। যে নামে বিকাশ ঐ বেক্তিকে আসল NID কার্ড সাথে নিয়ে যেতে হবে।

এখানে উল্লেখ্য নিজ নামে একাউন্ট হলে কোনো সমস্যা নেই, কিন্তু পরিবারের অন্য কোন সদস্যের নামে হলে তাকে ও তার NID কার্ড সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

বিকাশ অফিস ভিসিট করে কাস্টমার কেয়ার অফিসারকে আপনার সমস্যার কথা বলুন ,তারা সেটি সমাধান করার চেষ্টা করবে।

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ  করতে কি প্রয়োজন হবে –

আপনার অপ্রয়োজনীয় বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে হলে দুটি কাজ করতে হবে।

  • যে নামে বিকাশ চালু করা আছে ঐ বেক্তি ও তার NID কার্ড সঙ্গে নিয়ে বিকাশ অফিস ভিসিট করতে হবে।
  • ফ্যামেলীর অন্য কোন মেম্বার যথা বাবা/মা/ভাই/বোন এর আইডি কার্ডে একাউন্ট খুলে থাকলে, তাকেও অফিসে সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।
  • বিকাশ একাউন্ট ডিলিট করার পূবে বিকাশ একাউন্ট ব্যালেন্স 0 করে নিতে হবে।

কিভাবে বিকাশ অ্যাকাউন্ট ডিলিট করবো? 

বন্ধুরা আপনি বিকাশ অ্যাকাউন্ট বন্ধ বা ডিলিট আপনি যে নামেই দাকেন না কেন কাজ কিন্তু একই।

তাই বিকাশ অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলতে বা ডিলিট করতে উপরোক্ত নির্দেশনা অনুসরণ করুন।

বিকাশ একাউন্ট নাম পরিবর্তন করবো কিভাবে

বন্ধুরা বিকাশ নিয়ে অনেকের সমস্যা রয়েছে, সেই সকল সমশার একটি হচ্ছে বিকাশের মালিকানা পরিবর্তন।

বিকাশ অ্যাকাউন্ট মালিকানা পরিবর্তন করতে bkash helpline কল করে সম্ভব নয়।

বিকাশ কল সেন্টারে কল করলে তারা আপনাকে বিকাশ একাউন্টের নাম বা মালিকানা পরিবর্তন করতে বিকাশ একাউন্ট ডিএক্টিভ করতে হবে।

তাই এই কাজটি করতেও পূর্বেন ন্যায় উপরে বলা বিকাশ অ্যাকাউন্ট বন্ধের একই পদ্দতি অনুসরণ করতে হবে।

তাই বিকাশ অফিসে যাওয়ায় পূর্বে পার্সোনাল বিকাশ অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স 0 করে নিন। বন্ধ করন নিয়ম অনুরুপ ডিএক্টিভ করুন।

তবে মনে রাখবেন আপনাকে এত কিছু ছিন্তা করতে হবে না।

আমি আপনাকে বলছি বর্তমানে বিকাশ অ্যাকাউন্ট টি যেই নামে রয়েছে সেই বেক্তি এবং বন্ধ করার পর নতুন করে যে নামে খুলতে চান সেই বেক্তি উভয়ই তাদের আসল আইডি কার্ড নিয়ে বিকাশ অফিস ভিসিট করতে হবে।

উল্লেখ্য নতুন করে যেই নামে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলবেন ঐ বেক্তির আইডি কার্ডের কপি ও পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি সাথে নিজে যেতে হবে।

বিকাশ অফিস থেকে আপনার সমস্যা বুজে তারা আপনার কাজটি সম্পন্ন করে দিবে।

আরও পড়ুনঃ 

উপসংহার 

আশাকরি, আপনি বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরছেন। বিকাশ সম্পর্কে জানতে কমেন্ট করুন।

সাথে থাকুন জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম কি?

আপনার ব্যাবহার করা বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার জন্য প্রথমে আপনি আপনার বিকাশ একাউন্ট ব্যালেন্স 0 করে নিন। তারপর ভোটার আইডি কার্ড ও বিকাশ অ্যাকাউন্ট সিম টি সহ বিকাশের কাস্টমার কেয়ার এ উপস্থিত হয়ে সহজে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করুন।

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হলে কি করবেন?

যদি কোন কারণে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হয়ে যায় তবে আপনি আপনার নম্বর থেকে বিকাশ হেল্পলাইন ১৬২৪৭ নম্বরে কল করুন। বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার থেকে সঠিক তথ্য না পেলে আপনি নিকটস্থ বিকাশ কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে ভিজিট করুন।